শেরপুরে কলেজ ছাত্র হত্যা মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার

প্রচ্ছদ সারাদেশ

মোহাম্মদ দুদু মল্লিক শেরপুর:

শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে চাঞ্চল্যকর কলেজ ছাত্র রাজ্জাক হত্যা মামলায় ৮বছর আত্মগোপনে থাকা যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী সাজু আহম্মেদ ওরফে খোকনকে গাজীপুরে পৌর এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-১৪।

৩সেপ্টেম্বর রবিবার সকালে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত খোকন নালিতাবাড়ী উপজেলার বুরুঙ্গা পোড়াবাড়ী গ্রামের মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে।

র‌্যাব সুত্রে জানা গেছে, কলেজ ছাত্র আঃ রাজ্জাক শেরপুর জেলার সদর থানার যোগনীমুড়া গ্রামের মো. সোহরাব আলীর ছোট ছেলে। রাজ্জাক ও তার সহপাঠি ২০১৫ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি সকাল ১০টার দিকে  নালিতাবাড়ীর মধুটিলা ইকোপার্কে বেড়াতে যায়। একই দিন বিকেল আনুমানিক ৫টার দিকে দূর্বৃত্তরা দেশীয় অস্ত্রে-সস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ছিনতায়ের উদ্দেশ্যে তাদের উপর অতর্কিত আক্রমন করে এবং রাজ্জাকের বুকে ও পেটে ধরালো চাকু দিয়ে আঘাত করে। উক্ত আঘাতের ফলে  রাজ্জাক ঘটনাস্থলেই মৃত্যবরণ করে। এসময় ঘাতকরা পালিয়ে যায়।

পরবর্তীতে রাজ্জাকের বাবা বাদী হয়ে নালিতাবাড়ী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। উক্ত মামলায় দীর্ঘ তদন্ত শেষে আদালত ২০১৮ সালের ১এপ্রিল সাজু আহম্মেদ ওরফে খোকন দোষী প্রমাণিত হওয়ায় তাকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড ও ১০ হাজার টাকা অর্থদন্ড এবং অনাদায়ে আরো ৪ মাসের সশ্রম কারাদন্ডে দন্ডিত করেন আদালত ।

ঘটনার পর থেকেই আসামী সাজু আহম্মেদ ওরফে  খোকন গত ৮ বছর দেশের বিভিন্ন স্থানে আত্মগোপনে ছিল। পরে বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ ও বিশ্লেষণের মাধ্যমে আসামির অবস্থান সনাক্ত করে কোম্পানী কমান্ডার স্কোয়াড্রন লিডার আশিক উজ্জামানের নেতৃত্বে র‌্যাবের একটি অভিযানিক দল তাকে রবিবার সকালে গাজীপুরে পৌর এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে। পরবর্তীতে গ্রেপ্তারকৃত খোকনকে নালিতাবাড়ী থানায় হস্তান্তর করা হয়।