সাঈদীকে নিয়ে ফেসবুকে মন্তব্য করায় পদ হারালো ফেনী জেলা ছাত্রলীগের ২০ নেতা

প্রচ্ছদ সারাদেশ

যুদ্ধ অপরাধের দ্বায়ে দন্ডপ্রাপ্ত জামায়াত নেতা আল্লামা দেলোয়ার হোসেন সাঈদীর ইন্তেকালের পর সোস্যাল মিডিয়ায় ফেসবুকে স্ট্যাটাস ও মন্তব্য করায় পদ হারালেন ফেনীর ২০ ছাত্রলীগ নেতা।
তারা হলো ফেনী জেলা ছাত্রলীগের ছাত্রবৃত্তি সম্পাদক নজরুল ইসলাম জাবেদ, সদস্য আব্দুল্লাহ আল মামুন, রাকিব উদ্দিন, ফেনী সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন শিবলু, মো. মোস্তাফিজুর রহমান রিয়াদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. ওসমান গণি শুভ, উপদপ্তর সম্পাদক মো. আল মামুন, সমাজসেবা সম্পাদক আবদুল্লাহ আল আরাফাত, উপবিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক আবু সাঈদ, ফেনী সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সহসম্পাদক হাসান আহাম্মদ, ছনুয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি জামাল উদ্দিন রাজু, ফেনী পৌর ছাত্রলীগের ক্রীড়া সম্পাদক মো. শরিফ উদ্দিন ফরহাদ, দাগনভূঞা উপজেলা ছাত্রলীগের তথ্য ও গবেষণাবিষয়ক সম্পাদক জোবায়েদ হোসেন বাদল, ফেনী পৌর ছাত্রলীগের গণশিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম মুন্না, দাগনভূঞা উপজেলা ছাত্রলীগের প্রচার সম্পাদক ফজলুর রহমান, দাগনভূঞা পৌর ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নাজমুল হক পরান, ইকবাল মেমোরিয়াল কলেজ ছাত্রলীগের সহসভাপতি জাহিদ হাসান শুভ, সোনাগাজী উপজেলা ছাত্রলীগের উপবিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক শেখ রাসেল, সোনাগাজীর মতিগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আমির হোসেন রনি ও ফুলগাজী উপজেলা ছাত্রলীগের উপগণশিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক মো. আনোয়ার হোসেন।
জেলা ছাত্রলীগের সদস্য আব্দুল আল মামুন রাফি, উপজেলা উপ তথ্য প্রযুক্তি সম্পাদক শেখ রাসেল ও মতিগঞ্জ ইউনিয়নের যুগ্ম সম্পাদক আমীর হোসেন রনি।
ছাত্রলীগের আদর্শ ও নিয়মশৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ ১৯ আগস্ট শনিবার জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি তোফায়েল আহমেদ তপু ও সাধারণ সম্পাদক নুর করিম জাবেদের স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এটা জানানো হয়। এতে বিভিন্ন ইউনিটের ২০জন নেতার নাম উল্লেখ করা হয়েছে। এরমধ্যে সোনাগাজীর ৩জন রয়েছে